essay on why do students flunk out of college college application essay help online need dm4 standby resume pay for dissertation glossary
Tuesday, January 26বাংলারবার্তা২১-banglarbarta21
Shadow

ছোট একটি ভুলে শুরুতেই নিষিদ্ধ হলেন লেভারকুসেন হেড কোচ হেইকো হেরলিচ, latest breaking news bangla

Leverkusen head coach Heiko Herlich was banned from the start for a minor mistake

বার্তা কক্ষ: বৈশ্বিক মরনঘ্যাতি করোনার মধ্যেই মাঠে গড়াচ্ছে জার্মান ফুটবলের শীর্ষ লিগ বুন্দেসলিগা। শনিবার ওলফসবার্গের বিপক্ষে মাঠে নামবে আগসবার্গ। নতুন ক্লাব আগসবার্গের দায়িত্ব নেয়ার পর এই প্রথম ডাগআউটে দাঁড়ানোর সুযোগ ছিলো হোচ হেইকো হেরলিচের। প্রথমবারে তিনি ছোট্ট একটা ভুলের কারণে তা আর হচ্ছে না। দায়িত্ব নেয়ার শুরুতেই নিষিদ্ধ হতে হল সাবেক লেভারকুসেন হেড কোচের। অথচ এই ভূলটি ছোট হলেও তার জন্য খুবই ক্ষতিকর।


Message Room: The Bundesliga, latest breaking news bangla the top league of German football, is playing in the midst of the global death toll. Augsburg will take the field against Wolfsburg on Saturday. Hoch Heiko Herlich had the opportunity to stand in the first dugout after taking charge of the new club Augsburg. For the first time, he is not doing it because of a small mistake. The former Leverkusen head coach was banned at the outset. But even if this mistake is small, it is very harmful for him.

হোচ হেইকো হেরলিচের অপরাধটা হল- কোয়ারেন্টাইন বিধি ভেঙে সুপারসপে টুথপেস্ট কিনতে গিয়েছিলেন তিনি।

Hoch Heiko Herlich’s crime is that he went to Supershop to buy toothpaste in violation of quarantine rules.latest breaking news bangla.

একারনে তিনি শুধু ম্যাচের দিনই নয়, ম্যাচের আগে খেলোয়াড়দের সঙ্গে অনুশীলনেও থাকতে পারছেন না হেরলিচ।

Therefore, not only on the day of the match, but also before the match, the players are not able to practice with Herlich.
৪৮ বছর বয়সী হোচ হেইকো হেরলিচ তার ভুল স্বীকার করে এক বার্তায় বলেন, হোটেলের বাইরে গিয়ে আসলেই অনেক বড় ভুল করে ফেলেছি আমি।

Hoch Heiko Herlich, 48, latest breaking news bangla admitted in a statement that he had made a “big mistake” by leaving the hotel.

হেইকো আরো বলেন, যদিও আমি হোটেল থেকে বের হওয়া ও পরের সময়টায় সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনেই গিয়েছিলাম। তবে যা হয়েছে সেটা তো আর বদলাতে পারব না। এখনকার এই সময়ে দল ও সাধারণ মানুষের রোল মডেল হওয়ার মত কাজ ছিল না এটা। আমার এই ভূলটি তো আর শোধরানো যাবেনা।
“Although I left the hotel and followed all the hygiene rules,” latest breaking news bangla Heiko added. But I can’t change what has happened. At this time, it was not a job to be a role model for the team and the general public. This mistake of mine cannot be corrected anymore.

হোচ হেইকো হেরলিচ এক ভিডিওবার্তায় বলেছিলেন, আমার টুথপেস্ট শেষ হয়ে গিয়েছিল। সেজন্য সুপারমার্কেটে গিয়েছিলাম। কিন্তু তার এই বার্তাটি কোন কাজেই লাগেনী। শুরুতেই তাকে দিতে হলে জীবনের চড়া মূল্য।

“My toothpaste is gone,” Hoch Heiko Herlich said in a video message. That’s why I went to the supermarket. But his message was of no use. If you want to give him at the beginning, the price of life is high.

Leave a Reply

Your email address will not be published.